অবিবাহীত মেয়েদের জন্য ও কন্যা দায়গ্রস্ত পিতাদের জন্য তদবীর

  পৃথিবীর যতগুলো দুক্ষজনক বিষয় আছে তার মধ্যে একটি বড় দুক্ষ হচ্ছে কন্যা দায়গ্রস্ত পিতা/মাতাদের, একটি মেয়ে যদি বয়স হওয়ার পরেও বিয়ে না হয়, বা কোন কারনে বিয়ে দেওয়া না যায় তবে এর চাইতে বড় কষ্ট একজন পিতা/মাতার আর কিছুই হয় না। ঠিক তেমনি সেই মেয়েটির বেলাতেও একই ঘটনা, প্রতিটি মেয়ের’ই বুদ্ধি হওয়ার পর থেকেই …

ছোট শিশুর ঘুমের মধ্যে ভয় পাওয়া বা চমকানোর তাবিজঃ

      ছোট শিশুর ঘুমের মধ্যে ভয় পাওয়া বা চমকানোর তাবিজঃ বিধিঃ কোন শুভক্ষনে উপরোক্ত তাবিজটি লিখে রাখবে, এরপর যখনই এই রোগের কোন শিশু আসবে তামার মাদুলিতে ভরে তাবিজটি গলায় পড়িয়ে দিবে।

অধিক রক্তস্রাব রোগের চিকিৎসাঃ

নারী দেহে সাধারন রক্ত স্রাব বা মাসিক চক্র একটি প্রকৃতিক সাধারন বিষয়, কিন্তু কখনো কখনো এই রক্তস্রাব নির্দিষ্ট সময়ের পূর্বে বা মাত্রারিক্ত হতে থাকলে তা রোগ হিসেবে চিহ্নিত হয়, আর সেটার চিকিৎসা নানা ভাবেই হয়ে থাকে, বর্তমান এ্যলুপ্যাথি চিকিৎসা জনপ্রিয় হলেও হোমিওপ্যাথি বা আয়ুবের্দিক চিকিৎসাও এর জন্য যথেষ্ট জনপ্রিয়তার সাথে পূর্ব থেকেই চলে আসছে, তবে …

বেদনা বিহীন প্রসবঃ

  বেদনা বিহীন প্রসবঃ   বিধিঃ যষ্টিমধু ও লেবুর শিকড় একত্রে চুর্ন করিয়া ঘৃত ও মধুর সাথে মিশাইয়া সেবন করাইলে ব্যথা বেদনাহীন ভাবে নারী প্রসব করিতে পারে। তাছাড়া মাতুলঙ্গ মূলের ক্বাথ, ঘি ও মধুর সাথে পান করিলে সুখে প্রসব হয়।

কাক বন্ধ্যা দুরী করনঃ

কাক বন্ধ্যা দুরী করনঃ     বিধিঃ প্রথমে মহীষের দুধের সহিত একটি ছোট অপরাজীতার চারা গাছ পেষন করিবে, এরপর মহীষের দুধের ঘী সহ ঋতুকালে সেবন করিবে, এই ঔষধ পর পর সাতদিন সেবন করিতে হইবে। এই সাতিদিন লুঘু পথ্য আহার করিবে, কাম, ক্রোধ, লোভ, হিংসা ইত্যাদি থেকে বিরত থাকিবে। এই নিয়মে কাক বন্ধ্যা নারীর সন্তান প্রাপ্তি …