রাশিচক্র বা জন্ম রাশি

জ্যোতিষ ও বিজ্ঞান ………… বাস্তু ও জ্যোতিষ ……………………….. ছয়টি বেদাঙ্গের একটি জ্যোতিষ। প্রাচীনকালে জ্যোতিষ অনুসারে শুভ তিথি- যজ্ঞ করা হত। জ্যোতি অর্থ আলো। বিভিন্ন গ্রহ-নক্ষত্র দীপ্তিমান অর্থাৎ এদের জ্যোতি বা আলো রয়েছে। মানব-জীবনে বিভিন্ন গ্রহ-নক্ষত্রের প্রভাব সংক্রান্ত জ্ঞান বা বিদ্যাই জ্যোতিষ বিজ্ঞান। ভৃগু , পরাশর , জৈমিনি আদি প্রাচীন ঋষিগণকে জ্যোতিষ বিজ্ঞানের প্রবর্তক বলা চলে। […]

বেদনা বিহীন প্রসবঃ

  বেদনা বিহীন প্রসবঃ   বিধিঃ যষ্টিমধু ও লেবুর শিকড় একত্রে চুর্ন করিয়া ঘৃত ও মধুর সাথে মিশাইয়া সেবন করাইলে ব্যথা বেদনাহীন ভাবে নারী প্রসব করিতে পারে। তাছাড়া মাতুলঙ্গ মূলের ক্বাথ, ঘি ও মধুর সাথে পান করিলে সুখে প্রসব হয়।

কাক বন্ধ্যা দুরী করনঃ

কাক বন্ধ্যা দুরী করনঃ     বিধিঃ প্রথমে মহীষের দুধের সহিত একটি ছোট অপরাজীতার চারা গাছ পেষন করিবে, এরপর মহীষের দুধের ঘী সহ ঋতুকালে সেবন করিবে, এই ঔষধ পর পর সাতদিন সেবন করিতে হইবে। এই সাতিদিন লুঘু পথ্য আহার করিবে, কাম, ক্রোধ, লোভ, হিংসা ইত্যাদি থেকে বিরত থাকিবে। এই নিয়মে কাক বন্ধ্যা নারীর সন্তান প্রাপ্তি […]

অগ্নি স্তম্ভন মন্ত্রঃ

    মন্ত্রঃ “ওঁ হ্রীং মহিষ মর্দিনী লহ লহ হন হন কঠ কঠ স্তম্ভয় স্তম্ভয় অগ্নিং জড়ীভূতং কুরু কুরু স্বাহা হ্রীং।।” বিধিঃ পূর্বোক্ত বিধিতে মহিষ মর্দিনীর পূজাদি সমাপ্ত করে উপরোক্ত মন্ত্র ১০,০০০ (দশ হাজার) জপ করলে মন্ত্র সিদ্ধ হবে। তারপর উক্ত সিদ্ধ মন্ত্র ১০৮ বার  বলে গায়ে ১০৮ টি ফুঁ দিয়ে অগ্নি মধ্যে প্রবেশ করলেও […]

কাউকে গভির ঘুমে অচেতন রাখার জন্যঃ

  কাউকে গভির ঘুমে অচেতন রাখার জন্যঃ   কোন মুসলমান যদি শনিবার বা মঙ্গল বার মারা যায়, তার কবর দেওয়ার পর সেই দিনই বা পরবর্তি শনি বা মঙ্গল বার অর্ধ রাত্রে কবরাস্তানে গিয়ে সেই কবরের কিছু মাটি তুলে নিয়ে আসতে হবে। এবার যাকে ঘুম পাড়াতে হবে তার নিদ্রাবস্থায় সেই মাটির কিছু মাটি যদি তার চোখে […]

Get Money (English Collected)

  The Traditions   Don’t lend and don’t count your money in the evening. Borrowing of money must take place only at the time of the waxing moon when there is a natural increasing stream of astral forces and influences, and pay off a debt should on the waning moon. And better to take money […]

দূরপথ হেটে গেলেও ক্লান্তি আসবে নাঃ

  দূরপথ হেটে গেলেও ক্লান্তি আসবে নাঃ     বিধিঃ কালো তিতির পাখী ধরে এনে ৩দিন তাকে কিছু খেতে দিবে না। ৪দিনের দিন তাকে পারা খাওয়ায় দেবে। তারপর দুধে ভিজানো চাল খাওয়াবে। যখন তিতির পাখিটি পায়খানা করবে, তখন তার সঙ্গে পারা বের হবে। কারন পারা হজম হয় না। সেই পারা দিয়ে গুলী তৈরী করবে। এবার […]

ঋতু স্রাব না হইলেঃ

ঋতু স্রাব না হইলেঃ   জংলী কবুতরের শুষ্ক বিষ্ঠাচুর্ণ, আধা তোলা পরিমাণ লইয়া মধুর সহিত ৭ দিন খাইলে ঋতু স্রাব হইবে। যে সমস্ত স্ত্রী লোকের মোটেই ঋতু হয় নাই তাহারা ঐ রুপে শুষ্ক বিষ্ঠা পূর্নিমা বা আমাবস্যার ২দিন পূর্ব হইতে ও পরে ২দিন মোট ৫দিন খাইবে ইহাতে অবশ্যই বন্ধ ঋতু খুলিয়া যাইবে।। তবে এটার নিয়ম […]